বন্যার্তদের সহায়তায় ফ্রী টকটাইম এবং ইন্টারনেট দিচ্ছে সিম অপারেটর কোম্পানিগুলা

বর্তমান সিলেট এবং সুনামগঞ্জ বন্যা পরিস্থিতির কথা তো আমাদের সবারই জানা। এই সময়ে সিলেট বাসির পাশে দাড়াতে কাজ করছে দেশের সর্বস্তরের মানুষ। মিডিয়া ব্যাক্তিত্ব থেকে শুরু করে ইউটিউবার, শিল্পি এমন কি ব্লগার এবং অনেক সংস্থায়ও এগিয়ে আসছে বন্যা কবলিত মানুষের পাশে।

বাংলাদেশের সিম অপারেটর কোম্পানিগুলাও কিন্তু এই সিলেট – সুনামগঞ্জ বন্যা কে কেন্দ্র করে গ্রাহকদের যোগাযোগ রক্ষার্থে ১০ মিনিট টকটাইম এবং সঙ্গে ১০০ এমবি ইন্টারনেট দেওয়ার ঘোষনা দেয় দেশের অন্যতম সিম অপারেটর কোম্পানি বাংলালিংক। এবং এই বোনাস টকটাইম এবং এমবি এর মেয়াদ থাকবে ৩দিন। শুধু তাই নয় বন্যার্তদের সহায়তায় সকল প্রিপেইড গ্রাহকদের একাউন্টের মেয়াদ ও কিন্তু ৩০ দিন করে বৃদ্ধি করা হয়েছে পাশাপাশি ইমারজেন্সি ব্যাল্যান্স এর লিমিট করা হয়েছে ২০০ টাকা পর্যন্ত।

শুধু যে বাংলালিংক এমন উদ্যোগ নিয়েছে তা কিন্তু নয়। বাংলালিংক এর পাশাপাশি দেশের অন্য সিম অপারেটর গুলাও কিন্তু কাজ করছে এ ব্যাপারে । ইতিমধ্যে গ্রামীনফোন, রবি এবং টেলিটক কিন্তু তাদের গ্রাহকদের জন্য ফ্রী টকটাইম এবং ইন্টারনেট দেওয়ার ঘোষনাও দিয়েছে। বাংলালিংকের মতো গ্রামীনফোন তাদের গ্রাহকদের জন্য ১০ মিনিট টকটাইম, রবি তাদের গ্রাহকদের জন্য ১০ মিনিট টকটাইম এবং সাথে ১০০ এমবি ইন্টারনেট এবং টেলিটক ১০ মিনিট টকটাইম এবং ৫০০ এমবি ইন্টারনেট ও সেই সাথে ২০ টি এসএমএস ফ্রী দিবে বলে জানা যায়।

এ উদ্যোগে কিছুটা হলেও সিলেটবাসির যোগাযোগ রক্ষার্থে সহায়তা হবে বলে আশাবাদী সকলেই। পরিবার ও কাছেরমানুষদের সাথে যোগাযোগ রক্ষার্থে কিছুটা হলেও ভূমিকা রাখতে প্রস্তুত দেশের সব অপারেটর কোম্পানি গুলাও। এছাড়াও বন্যা কবলিত এলাকায় কিন্তু ব্যাপকভাবে ইন্টারনেট প্রবলেম এর মুখোমুখি হচ্ছে স্থানীয়রা । এ বিষয়েও কাজ করছে অপারেটর কোম্পানিগুলা।

দেশের এই ক্রান্তিলগ্নে সর্বস্তরের মানুষের এমন অংশগ্রহণ সত্যই প্রশংসার দাবিদার। অপারেটর কোম্পানিগুলার এমন উদ্যোগ এর খবর জেনে আপনি কি ভাবছেন কমেন্ট করে জানাবেন কিন্তু। ধন্যবাদ 💞

Rate this post

1 thought on “বন্যার্তদের সহায়তায় ফ্রী টকটাইম এবং ইন্টারনেট দিচ্ছে সিম অপারেটর কোম্পানিগুলা”

Leave a Comment